বিশেষ সংবাদ:

আজ শেষ হচ্ছে ‘সেলিম আল দীন জন্মোৎসব’

Logoআপডেট: রবিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৭

এবি প্রতিবেদক  

নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন-এর ৬৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে গুণী এই নাট্যজন স্মরণে থিয়েটার সংগঠন স্বপ্নদল আয়োজন করেছে তিনদিন ব্যাপী ‘নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন জন্মোৎসব-২০১৭'। ‘রবীন্দ্রনাথ-সেলিম আল দীন রয় ঐতিহ্যের ধারায়, বাঙলা নাট্যের জয়যাত্রা কভু না হারায়’ শ্লোগানে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালায় চলছে তাৎপর্যমুখর এ নাট্যায়োজন।
আজ ২০ আগস্ট দলটির প্রযোজনায় নাট্যাচার্যের ‘হরগজ’ মঞ্চায়নের মধ্য দিয়ে শেষ হবে বর্ণাঢ্য এ নাট্যোৎসব। নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন-এর কালজয়ী সৃষ্টি ‘হরগজ’-এর নির্দেশনা দিয়েছেন স্বপ্নদল প্রধান জাহিদ রিপন। সন্ধ্যায় নাটক মঞ্চায়নের পূর্বক্ষণে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে নাট্যাচার্যের জীবন-কর্ম-দর্শন নিয়ে আলোচনার মধ্য দিয়ে উৎসবের সমাপনী ঘোষণা করবেন নাট্যজন ড. ইনামুল হক।

১৯৮৯ খ্রিস্টাব্দে মানিকগঞ্জ জেলার হরগজ নামক স্থানে ঘটে যাওয়া প্রলয়ঙ্করী টর্নেডোর অভিজ্ঞতা নিয়ে ১৯৯২-এ সেলিম আল দীন ‘হরগজ’ নাটকটি রচনা করনে। প্রায়-আণবিক বিস্ফোরণতুল্য সে ঝড়ের পরে প্রথম-উদ্ধারকারী দলের সেখানে গমন এবং আকৃতির জগৎ থেকে তাদের হঠাৎ নিরাকৃতির জগতে উপস্থিত হওয়ার প্রতিক্রিয়া ও পরিণতি নিয়েই নাটকটি আর্বর্তিত।
এতে নাট্যকার ত্রাণদলের প্রধান চরিত্রের মাধ্যমে এক নব্যকালের যিশুখ্রিস্টকে সৃষ্টি করেছেন যে ত্রাণকর্তারূপে আবির্ভূত হয়ে শেষে নিজেই আর্তে পরিণত হয়। প্রকৃতপক্ষে হরগজ-কে ভেঙ্গে যাওয়া সমগ্র বিশ্বের রূপক ধরে এ নাট্যের মধ্য দিয়ে নাট্যকার সবাইকে যেন অধিকতর মানবিক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

‘হরগজ’ ছাড়াও স্বপ্নদলের দর্শকনন্দিত নাটক ‘চিত্রাঙ্গদা’ এবং ‘হেলেন কেলার’ মঞ্চায়ন, বিশেষ বক্তৃতানুষ্ঠান, আলোচনা, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে নাট্যাচার্যের সমাধিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ, নাট্যাচার্যের প্রতিকৃতি এবং নাট্যমুখোশ দিয়ে শিল্পকলার চত্বর সজ্জাসহ নানা আয়োজনে সাজানো হয় তিনদিন ব্যাপি এ উৎসব।
আসরে মঞ্চায়িত ‘চিত্রাঙ্গদা’, ‘হেলেন কেলার’ এবং ‘হরগজ’ -তিনটি প্রযোজনাই ঐতিহ্যের ধারায় রবীন্দ্রনাথ-সেলিম আল দীন উদ্ভাবিত আধুনিক ‘বাঙলা নাট্যরীতিতে নির্মিত হয়েছে। আর নাট্যাচার্যকে নিয়ে এটি স্বপ্নদলের নিয়মিত উৎসবের ১৬তম আসর।