বিশেষ সংবাদ:

ভেঙ্গে গেল মিলার সংসার!

Logoআপডেট: শনিবার, ০৭ অক্টোবর, ২০১৭

এবি প্রতিবেদক
দীর্ঘ ১০ বছর চুটিয়ে প্রেম করে গত ১২ মে বৈমানিক পারভেজ সানজারিকে বিয়ে করেছিলেন জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী মিলা ইসলাম।

 

কিন্তু বিয়ের ৫ মাসের মাথায় স্বামীর বিরুদ্ধে অন্য নারীর সঙ্গে সম্পর্ক ও নিজের ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ এনে এবার ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই পপ গায়িকা। শুক্রবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে নিজের ফেসবুক পেইজ ও ভেরিফায়েড ফ্যান পেজে এক পোস্টে একথা জানান তিনি। যদিও গত মাসে মিলার সংসার ভেঙে যাচ্ছে বলে গুজব ছড়িয়ে পড়লেও সে সময় এ খবরকে ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দেন তিনি।

 

তবে এদিন রাতে ফেসবুক পোস্টে মিলা লেখেন, হ্যাঁ, আমি ডির্ভোস দিতে যাচ্ছি। ১০ বছর প্রেম করার পর পারভেজ সানজার সঙ্গে বিয়ে করেছিলাম, কিন্তু বিয়ের মাত্র ১৩ দিনের মাথায় জানতে পারি আমার স্বামী একাধিক নারীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িত। আমার স্বামী ক্রমাগত আমার সাথে প্রতারণা করতে থাকে। যখন আমরা ডেটিং করতাম তখন এবং বিয়ের পর এখনও একাধিক নারীর সঙ্গে প্রেম করে সে আমার সঙ্গে প্রতারণা চালিয়ে যাচ্ছিল। এরপর আর এমন প্রতারকের সঙ্গে আমি বাস করতে পারি না। ’তিনি আরও বলেন, কোনো পুরুষ সহ্য করবে না তার স্ত্রীর কোনো পুরুষের সঙ্গে সম্পর্ক। ঠিক তেমনি কোনো নারীও সহ্য করবে না তার স্বামীর অন্য কারও সঙ্গে সম্পর্ক। মিলা লিখেন, ‘আমি কেবল তার (পারভেজ সানজার) কাছ থেকে মানসিক নির্যাতন পেয়ে যাচ্ছিলাম। এ ছাড়া শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছি। অনেক চেষ্টা করেও সংসার টিকিয়ে রাখতে পারলাম না। একটা সময় উপলব্ধি করলাম যে আমি আর এ সব সহ্য করতে পারছি না। এখন আমার ভাগ্য আমার নিজের হাতে নিতে হবে এবং এই খারাপ পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। এজন্য আমার ভক্তদের কাছে সাপোর্ট ও দোয়া চাই। আগামীতে গানকে লালন করে কাজে মনোযোগী হতে চাই। ’তিনি আরও লেখেন, সবশেষে আমি বিষয়টা পরিবারের কাছে জানিয়ে সাহায্য চাই। তারা আমাকে উত্তরা থানায় নিয়ে যায়। সেখানে আমি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছি। যে মামলায় পারভেজ সানজারিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।