বিশেষ সংবাদ:

চীনে দেড়শ দেশের প্রতিযোগীদের মুখোমুখি ঐশী

Logoআপডেট: মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৮

এবি প্রতিবেদক

৬৮তম মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী এবার ১৫০টি দেশের প্রতিযোগীদের সঙ্গে লড়বেন। লাল-সবুজ পতাকার প্রতিনিধি হয়ে এরই মধ্যে চীনে পৌঁছেছেন ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ ঐশী।

১০ নভেম্বর শনিবার দিবাগত রাত ১টার ফ্লাইটে চীনের সানাইয়া শহরের উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করে রবিবার সেখানে পৌঁছান। বিষয়টি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে নিজেই নিশ্চিত করেছেন ঐশী।

এর আগে শনিবার রাতে হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আয়োজক প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে তাকে বিদায় জানান অন্তর শোবিজের কর্ণধার স্বপন চৌধুরী। পরদিন সকালে চীনের সানাইয়া শহরে পৌঁছালে মিস ওয়ার্ল্ডের প্রতিনিধিরা ঐশীকে স্বাগত জানান। ঐশী এখন সানাইয়া শহরে আছেন। সোমবার সকাল থেকে গ্রুমিংয়েও অংশ নিয়েছেন। এরই মধ্যে কয়েকটি দেশের প্রতিযোগীর সঙ্গে তার পরিচয় হয়েছে।

আগামী ৮ ডিসেম্বর ৬৮তম মিস ওয়ার্ল্ডের চূড়ান্ত অনুষ্ঠান। এর আগেই রয়েছে প্রতিযোগিতামূলক বিভিন্ন সেগমেন্ট। সবকিছুতে টিকলে মিস ওয়ার্ল্ডের গ্র্যান্ড ফিনালে দেখা যাবে ঐশীকে। এরপর তিনি দেশে ফিরবেন ১০ ডিসেম্বর।

প্রসঙ্গত, ৩০ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় এক আয়োজনের মধ্য দিয়ে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের গ্র্যান্ড ফিনালে বিজয়ীর মুকুট জয় করে পিরোজপুরের মেয়ে ঐশী। এর আগে গত ১৬ সেপ্টেম্বর এফডিসিতে শুরু হয় প্রতিযোগিতার অডিশন রাউন্ড।

এরপর সিলেকশন, পারফরম্যান্সসহ বিভিন্ন রাউন্ডে ধাপে ধাপে বাছাই প্রক্রিয়া শেষে সেরা সুন্দরী হিসেবে ১০ জনকে বাছাই করেন বিচারকেরা। এমনিভাবে ৩০ হাজার প্রতিযোগীকে টপকে অপর নয়জনের মতো গ্র্যান্ড ফিনালে ওঠেন ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। এতে সেরা সুন্দরীর খেতাব অর্জন করেন ঐশী। এ যাত্রায় তার ভাগ্যে কী রয়েছে তাই এখন দেখার বিষয়।