বিশেষ সংবাদ:

‘বাংলালিংক বইঘর আবৃত্তি ফেস্ট’-এ বিজয়ী ১২ আবৃত্তিশিল্পী

Logoআপডেট: রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

এবি প্রতিবেদক
অনুষ্ঠিত হয়েছে ‘বাংলালিংক বইঘর আবৃত্তি ফেস্ট’-এর গ্র্যান্ড ফিনালে তথা চূড়ান্ত পর্ব। হাজার হাজার প্রতিযোগীর মধ্য থেকে চূড়ান্ত পর্বে উঠে এসেছেন ২০ জন। ২২ সেপ্টেম্বর শনিবার সন্ধ্যায় বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র মিলনায়তনে প্রধান তিন বিচারকের উপস্থিতিতে এ আয়োজন সম্পন্ন হয়।

দেশীয় সংস্কৃতির উৎকর্ষ সাধনে আয়োজিত এ প্রতিযোগিতায় ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে চার হাজারের বেশি প্রতিযোগী এতে অংশ নেয়। বাংলালিংক ব্যবহারকারী প্রতিযোগিরা নিজের ও বিশিষ্ট কবিদের কবিতা আবৃত্তি রেকর্ড করে পাঠায় বইঘর অ্যাপ ও ৭০৫০ নম্বরে। কয়েক দফা বাছাইয়ের পর ছোট ও বড় বিভাগে ২০ জন প্রতিযোগী চূড়ান্ত পর্বে সুযোগ পায়।

তাদের মধ্য থেকে ১২ জনকে পুরস্কৃত করা হয়। 'বাংলালিংক বইঘর আবৃত্তি ফেস্ট'-এ প্রধান বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন বিশিষ্ট তিন ব্যক্তিত্ব জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়, সূবর্ণা মুস্তাফা ও সৌমিত্র শেখর। প্রতিযোগিতায় বিজয়ীরা হলেন মহেব্বুল আরাবী নাঈম, আনিকা তাবাসসুম, হিমাংসু বিশ্বাস, রীনা পাল, জান্নাতুল নাঈম ইতি, ফরিদা ইয়াসমিন, আফরিন রহমান তাসিন, সানজিদা আফরিন, আফসানা অহনা, তৃণা কর, রামিজা বশির বুশরা ও লামিয়া জাহান এশা।

এই আয়োজনে প্রধান অতিথি ছিলেন কবি নির্মলেন্দু গুণ ও বিশেষ অতিথি ছিলেন গীতিকবি শহীদুল্লাহ ফরায়জী। এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন মোবাইল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক-এর চিফ কমপ্লায়েন্স অফিসার এম নুরুল আলম, বাংলালিংক-এর চিফ লিগ্যাল অফিসার যাহরাত আদিব চৌধুরী, ই.বি সল্যুশনসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাফিউর রহমান খান ইউসুফজাই, পরিচালক মো. ফয়সাল আহমেদ, এনামুল হক ও রফিকুল আলম কবিরাজ, সিওও খালেদুর রহমান দেওয়ানসহ আরও অনেকে।

অনিক ধর, হেড অফ ই-প্রোডাক্টস, মার্কেটিং, বাংলালিংক বলেন, ‌‘দেশীয় সংস্কৃতির চর্চা ও প্রতিপালনের লক্ষ্যে বাংলালিংক বিভিন্ন ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করে আসছে। 'বাংলালিংক বইঘর আবৃত্তি ফেস্ট' মেধাবী আবৃত্তিকারদের উদ্বুদ্ধ করার পাশাপাশি তাদের প্রতিভা বিকাশের সুযোগ করে দিয়েছে। আমরা আশা করি, এই উদ্যোগ বাংলাদেশের আবৃত্তি চর্চার ঐতিহ্যকে আরও সমৃদ্ধ করতে ভূমিকা রাখবে।’