বিশেষ সংবাদ:

আবৃত্তি বিভাগে জেলা শিল্পকলা একাডেমী সম্মাননা পেলেন মাইন উদ্দিন পাঠান

Logoআপডেট: শনিবার, ০৫ জুলাই, ২০১৪

এবি প্রতিবেদক
জেলা শিল্পকলা একাডেমী সম্মাননা পেলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও সাংস্কৃতিক মাইন উদ্দিন পাঠান। জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে ২৫ জুন সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসক এ.কে এম টিপু সুলতানের সভাপতিত্বে আয়োজিত এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে তাৎপর্যপূর্ণ এই সম্মাননা প্রদান করা হয়।
জেলা তথা দেশের শিল্প ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে অসামান্য অবদানের জন্য সংস্কৃতিক অঙ্গনের পুরোধা ব্যক্তিত্ব মোঃ মাইন উদ্দিন পাঠানকে মনোনীত আবৃত্তি বিভাগে এই স্বারক সম্মাননা দেওয়া হয়।

এছাড়াও তপন কুমার দাস নাটক বিভাগে, মুকুল দাস সঙ্গীত বিভাগে, বনশ্রী পাল নৃত্য বিভাগে এবং মাহবুবুল বাসার যন্ত্র সংগীত বিভাগে এই সম্মাননা অর্জন করেন। আসরে সম্মাননাপ্রাপ্ত গুণী শিল্পীদের প্রত্যেককে উত্তরীয় পরানো হয় এবং সম্মাননা পদক, সনদপত্র ও নগদ ১০ হাজার টাকা করে প্রদান করা হয়। সম্মাননা অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন লক্ষ্মীপুর পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব আবু তাহের, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ শাহাদাত হোসাইন ও উপ-পরিচালক স্থানীয় সরকার বিভাগ মোঃ আবদুর রউফসহ স্থানীয় বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

আনুষ্ঠানিকতায় অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে নাট্যজন মাইন উদ্দিন পাঠান বলেন, সকল স্বীকৃতি-ই আনন্দের। রাষ্ট্রিয় এই মূল্যায়ন শিল্প-সংস্কৃতির প্রতি আমার দায়িত্বকে আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। জেলা পর্যায়ে সংস্কৃতিসেবীদের সম্মান জানানোর সরকারের গৃহীত সিদ্ধান্তকে তিনি ধন্যবাদ জানান। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে জমকালো সাংস্কৃতিক আয়োজনের মধ্য দিয়ে বর্ণীল এ আনুষ্ঠানিকতার সমাপ্তি ঘটে।
উল্লেখ্য, বর্তমান সরকারের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমী প্রতিবছর প্রত্যেক জেলায় সংস্কৃতিচর্চায় নিবেদিত প্রাণ ৪০ উর্দ্ধো বয়সের ৫ জন গুণী ব্যক্তিকে সম্মাননা প্রদানের অংশ হিসেবে এই আয়োজন বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।