বিশেষ সংবাদ:

নিজের বুকের দুধ বিক্রি করে সোয়া ৪ লাখ টাকা আয়!

Logoআপডেট: রবিবার, ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৪

এবি ডেস্ক
আর কয়েকদিন পরই শুরু হচ্ছে খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ‘বড়দিন’।

 

দিনটি ঘিরে সারাবিশ্বের খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের ঘরে ঘরে চলে বর্ণিল উৎসব। দেশের সব গির্জা ও অভিজাত হোটেল রঙিন বাতি আর ফুল দিয়ে সাজানো হয়।

 

খ্রিস্টানদের এই সর্ববৃহৎ উৎসব পালনের খরচ যোগাতে নিজের বুকের দুধ বিক্রি করেছেন ইংল্যান্ডের এক নারী। রেবেকা হাডসন নামের এই নারী চার সন্তানের জননী। বয়স ২৬ বছর। এমন সংবাদ প্রকাশ করেছে ‘দি ডেইলি মিরর’।

 

সংবাদ মাধ্যমটিকে রেবেকা জানান, আড়াই মাস আগে তার একটি মেয়ের জন্ম হয়। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের আগেই সন্তানের জন্ম হওয়ায় তার বুকে দুধ হচ্ছিল না। কিছুদিন পর অবশ্য প্রচুর দুধ আসে তার বুকে। অথচ সন্তান সারাদিনে দুধ পান করে মাত্র তিন আউন্স। তিনি বলেন, ‘আমি বাড়তি দুধ ফেলে নষ্ট করতে চাইনি কেননা মায়ের বুকের দুধ তৈরি করার পরিশ্রম অনেক।

 

তাই ভাবলাম, যদি আমার বাচ্চাদের জন্য দুধ বেচে কিছু পয়সা আসে! রেবেকা অনলাইনে খোঁজখবর করে দেখলেন, যুক্তরাষ্ট্রের নারীরা ইতিমধ্যেই তাদের বুকের দুধ বিক্রি করেন। তাই তিনিও অনলাইনে নিজের বুকের দুধ বিক্রির বিজ্ঞাপন দেন। সেই বিজ্ঞাপন দেখে অনেকেই যোগাযোগ করেন। এখন তার ক্রেতার সংখ্যা ৮। তাদের কাছে এক বোতল দুধ বিক্রি করেন সাড়ে ১২ পাউন্ড অর্থাৎ দেড় হাজার টাকা।

 

ক্রেতা সম্পর্কে রেবেকা জানান, তাদের মধ্যে একজন বডিবিল্ডার রয়েছেন। যিনি নিজের পুষ্টি বাড়ানোর জন্য সেই দুধ পান করেন। বাকিদের অনেকেই ভোজনরসিক। যারা খাবারের আলাদা স্বাদ পেতে সে দুধ ব্যবহার করেন রান্নায়।

 

আবার কেউ কেউ যৌন উত্তেজনা, মজা উপভোগ করার জন্যও রেবেকার বুকের দুধ পান করেন। এ জন্য অবশ্য মাথা ব্যথা নেই রেবেকার। দুধ কেনার পর তা দিয়ে কে কি করলো সেটা তাদের ব্যাপার। মজার বিষয় হলো সেই দুধ বিক্রি করে তিনি আয় করেছেন সোয়া ৪ লাখ টাকা (সাড়ে তিন পাউন্ড)।