বিশেষ সংবাদ:

মাধুরীর বিয়ের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন যে গায়ক

Logoআপডেট: রবিবার, ২২ জুলাই, ২০১৮

এবি ডেস্ক
আশি ও নব্বই দশকের সাড়া জাগানো বলিউড তারকা মাধুরী দীক্ষিত এখনো নিজের আবেদন ধরে রেখেছেন স্ব-মহিমায়। প্রাণবন্ত অভিনয়, মনমাতানো নাচ ও মায়াময় রূপ-সৌন্দর্য দিয়ে হাজারো দর্শককে মাতিয়ে রাখেন তিনি। অসাধারণ হাসি ও চোখের অভিব্যক্তি দিয়ে যে কারো মন জয় করে ফেলতে পারেন মুহূর্তেই।

তার হাসিতে ঘায়েল হয়নি, এমন পুরুষ কমই আছে। তারপরও বলিউডের লাস্যময়ী এই ডান্স কুইনকে বিয়ে করতে অস্বীকার করেছিলেন এক গায়ক। কিন্তু কেনই বা তিনি রাজি ছিলেন না- অবশেষে জানা জানা গেল- সেই অজানা কারণ।
মাত্র ১৭ বছর বয়সে, ১৯৮৪ সালে ‘অবোধ’ সিনেমা দিয়ে বলিউডে পা রেখেছিলেনন মাধুরী। নব্বইয়ের দশকে ‘তেজাব’ সিনেমায় তার ‘এক দো তিন’, ‘বেটা’ সিনেমায় ‘ধক ধক করনে লাগা’ গান দিয়ে দর্শক হৃদয়ে ঝড় তুলেছিলেন। সিনেপ্রেমীদের মনে ঝড় তুললেও বাবা-মায়ের মনে সারাক্ষণ চিন্তা মাধুরীর জন্য। তারা ভাবতেন, মাধুরী ছবিতে অভিনয় করছেন। তার হয়তো কখনও বিয়েই হবে না।

অবশেষে পাত্র খুঁজে পেলেন মাধুরীর বাবা-মা। গায়ক সুরেশ ওয়াডকরের কাছে মাধুরীকে বিয়ের প্রস্তাব পাঠালেন তার বাবা-মা। বলিউডে সবে তখন কয়েকটা গান গেয়েছেন সুরেশ। তবে হালকা গড়নের মাধুরীকে বিয়ে করতে তিনি মোটেও রাজি নন। কারণ মাধুরী নাকি খুব রোগা।
এ ঘটনায় মাধুরীর বাবা বেশ আশাহত হয়েছিলেন। কিন্তু সুরেশের সঙ্গে বিয়ে হলে ‘আজা নাচ লে’-র মাধুরীকে হয়তো এতোটা স্বতঃস্ফূর্ত পেতোই না দর্শক। অবশেষে অগণিত দর্শকদের মাত করে বলিউডে প্রতিষ্ঠা পায় মাধুরী। তিনি অভিনয় করেছেন বলিউডের তিন খানের সঙ্গেই।

অতঃপর ১৯৯৯ সালের ১৭ অক্টোবর শ্রীরাম মাধব নেনের সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়েন মাধুরী। অরিন আর রায়ান নামে দুই সন্তানও রয়েছে তাদের।