বিশেষ সংবাদ:

ঢাবির অতিথি হয়েছেন দুই বাংলার প্রিয় তারকা ফেরদৌস ও ঋতুপর্ণা

Logoআপডেট: মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ, ২০১৫

এবি প্রতিবেদক
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টেলিভিশন এন্ড ফিল্ম স্টাডিজ বিভাগ আয়োজিত ‘নির্মাতার চোখে অভিনয়’ শীর্ষক সেমিনারে বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢালিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা ফেরদৌস এবং কলকাতার অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত।

 

সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েল উপাচার্য আ স ম আরেফিন সিদ্দিক। টেলিভিশন এন্ড ফিল্ম স্টাডিজ বিভাগের চেয়ারম্যান ড. এজেএম শফিউল আলম ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে সেমিনারটি অনুষ্ঠিত হয় সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের মুজাফফর আহমেদ চৌধুরী মিলনায়তনে। সেমিনারের দুই বক্তা নিজেদের বক্তব্যের পরে উপস্থিত শিক্ষার্থী এবং দর্শক শ্রোতার প্রশ্নের উত্তর দেন। আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে ‘শিল্পী জীবন ও শিল্প ভাবনা’ শিরোনামে একটি মাল্টিমিডিয়া প্রেজেন্টেশন প্রদর্শন করেন অভিনয়ের জন্য প্রসংশিত এবং পুরস্কৃত অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। ‘পরিশ্রমের কোন বিকল্প নেই।

 

ইমাজিনেশন ও অবজারভেশন একজন অভিনেত্রীকে পূর্ণতা দেয়। আমার তো অভিনয়ের জন্য কোন ট্রেনিং ছিল না। পরিচালকদের বকা খেয়ে, সিনিয়রদের অভিনয় দেখে, মন প্রাণ দিয়ে চরিত্রটি আপন করে অভিনয় করেছি। দুই বাংলায় আমার যত প্রাপ্তি- অভিনয়ের জন্যই।’- নিজের সম্পর্কে বললেন ঋতুপর্ণা। টেলিভিশন এন্ড ফিল্ম স্টাডিজ বিভাগ আয়োজিত সেমিনার এই বিভাগের শিক্ষার্থীদের ভিড়টাই বেশি ছিলো। নির্মাণ ও অভিনয় নিয়ে আগ্রহের কারণেই তাদের প্রশ্নের ভান্ডার অফুরন্ত। শিক্ষার্থীদের প্রশ্নের বাছাইকৃত প্রশ্নের জবাবে ঋতুপর্ণা বলেন, ‘একজন পরিচালকের ছবিতে তখনই আমি কাজ করবো, যখন তার মধ্যে কিছু গুণ অবশ্যই দেখবো। গল্প, চিত্রনাট্য, ভিশন, রিফ্লেকশন এবং তার কনফিডেন্স।’

 

 

বক্তব্য শেষে শিক্ষার্থীদের কলকাতা ভ্রমণে আমন্ত্রন জানান তিনি। ফেরদৌস তার সহশিল্পী ঋতুপর্ণার কথায় কথা মিলিয়ে বলেন, ‘আমার এবং ঋতুর একটি ছবির শুটিং হবে কিছুদিন পরে। তখন কলকাতায় গেলে সকল শিক্ষার্থী ছবির তৈরির প্রক্রিয়া হাতে কলমে দেখতে পারবে।