বিশেষ সংবাদ:

চলচ্চিত্রে অথৈ, জুটি গড়ছেন শিশিরের সাথে

Logoআপডেট: শনিবার, ২৭ অক্টোবর, ২০১৮

এবি প্রতিবেদক 

টিভি নাটক ও চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে সবার নজর কেড়েছেন তরুণ প্রজন্মের সুদর্শন অভিনেতা শিশির। ইতোমধ্যে তিনি মাটিরপরী, গুণ্ডামি, ভালোবাসাপুর, চুরিচুরি মন চুরি ও উদীয়মান সূর্য চলচ্চিত্রে অভিনয় করে দর্শকদের চমকিত করেছেন।
অপর দিকে, সময়ের সম্ভাবনাময় মডেল অভিনেত্রী তাহমিনা অথৈ নিজস্ব গ্ল্যামার ও লুকে তরুণ প্রজন্মের কাছে বেশ আলোচিত হয়ে উঠেছেন। তাহমিনা অথৈ ‘ওয়ার্ল্ড মিস ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ ২০১৭’-প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হওয়া এই সুন্দরী এই প্রথমবারের চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে যাচ্ছেন শিশিরের বিপরীতে। দুজনের রসায়ন এরই মধ্যে সবার আগ্রহের কারণ হয়ে ওঠেছে।

গুণী পরিচালক সাইদুল আনাম টুটুলের পরিচালনায় নির্মাণ হতে যাচ্ছে ২০১৭-২০১৮ অর্থ বছরের সরকারি অনুদানে ছবি ‘কালবেলা’। যার প্রধান দুই চরিত্র মতিন ও সানজিদা। ছবির মতিন চরিত্রে শিশির ও সানজিদা চরিত্রে তাহমিনা অথৈকে চূড়ান্ত করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন নির্মাতা নিজেই। ছবিটি নির্মিত হবে টুটুলের নিজস্ব প্রযোজনা সংস্থা ‘আকার’ থেকে।

সরকারি অনুদানের এই ছবিতে কাস্টিং করার বিষয়ে নির্মাতা সাইদুল আনাম টুটুল বলেন, শিশির এবং তাহমিনা দু’জনই এই চলচ্চিত্রের গল্প ও চরিত্রানুয়ী পারফেক্ট। সেই বিবেচনা থেকেই তাদেরকে চূড়ান্ত করেছি। তারা দুজনই ভালো করবে বলে আমি খুবই আশাবাদী।’ আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহে খুলনায় ‘কালবেলা’র শুটিং শুরু হতে যাচ্ছে বলেও জানিয়েছেন সাইদুল আনাম টুটুল।

এ প্রসঙ্গে শিশির বলেন, ‘এর আগে আমি অনেকগুলো চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছি। কিন্তু টুটুল স্যারের ‘কালবেলা’ আমার জন্য অনেক বড় প্লাটফরম। যা আগামীদিনে অভিনয়ের আঙ্গিনায় আমার পথচলায় অনেক সাহস ও শক্তি যোগাবে। আমাকে এ চলচ্চিত্রে সুযোগ দেয়ার জন্য টুটুল স্যারের প্রতি আমি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।’

তাহমিনা অথৈ বলেন, ‘আমি নিজেকে অভিনয়ে প্রতিষ্ঠিত করার চেষ্টা করছি। কারণ ছোটবেলা থেকেই অভিনয়ে নিজেকে সম্পৃক্ত রেখেছি। যতই বেড়ে উঠছি ততই অভিনয় নিয়ে আমার স্বপ্নটা বড় হচ্ছে। ‘কালবেলা’র মধ্যদিয়ে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের যাত্রাটা অবশ্যই আমার জন্য অনেক বড় বিষয়। টুটুল স্যারের মতো এতো বড় মাপের একজন নির্মাতার নির্দেশনায় কাজ করা আমার জন্য সৌভাগ্যের।’

উল্লেখ্য 'কালবেলা' চলচ্চিত্রের গল্প নেয়া হয়েছে ২০০১ সালে আইন ও সালিশ কেন্দ্র কর্তৃক প্রকাশিত ‘নারীর ৭১ ও যুদ্ধপরবর্তী কথ্যকাহিনি’ বই থেকে। মুক্তিযুদ্ধের সময় অসংখ্য নারীর উপর অন্যায়, অত্যাচার ও নির্যাতনের গল্প তুলে ধরা হয়েছে বইটিতে। তারমধ্যে একজন নারী সানজিদা। সানজিদার উপর করা মানষিক ও সামাজিক নির্যাতনের গল্পই এ চলচ্চিত্রে ফুটিয়ে তুলবেন বলে জানান নির্মাতা সাইদুল আনাম টুটুল।