বিশেষ সংবাদ:

এইডস-এ আক্রান্ত হলিউড অভিনেতা

Logoআপডেট: বৃহস্পতিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৫

এবি ডেস্ক
প্রাণঘাতি ব্যাধি এইচআইভিতে (এইডস) আক্রান্ত গোল্ডেন গ্লোব জয়ী খ্যাতনামা হলিউড অভিনেতা চার্লি শিন।

 

২০১২ সাল থেকে তার এইচআইভি পজিটিভ ধরা পড়ে। এতদিন এ খবরটা ছিল নিছকই গুজব। রাখা হয়েছিল গোপন। সম্প্রতি আমেরিকার এক সংবাদ মাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাতকারে নিজের মুখেই এই অভিনেতা স্বীকার করেছেন তার সেই ‘ভয়ংকর’ গোপনীয়তার কথা।

 

ওই সাক্ষাতকারে চার্লি স্পষ্ট করে জানান, ‘অনেক চেষ্টা করেছিলাম খবরটা গোপন রাখতে। কিন্তু চারিদিকে আমাকে নিয়ে চলছে প্রচুর গুঞ্জন। এসব আর ভালো লাগছে না। তাই সময় এসেছে সত্যিটাকে সামনে আনার। হ্যাঁ, আমি স্বীকার করছি আমার এইচআইভি পজিটিভ।’

 


এ পর্যন্ত দুটি বিয়ে করেছেন হলিউডের এ অভিনেতা। দুই স্ত্রীকেই এইচআইভি-র কথা জানিয়েছিলেন তিনি। সম্প্রতি জানিয়েছেন বড় মেয়েকেও। তবে শিনের চিকিৎসকের দাবি, ‘অভিনেতার এখনও এইডস হয়নি। তবে তাকে নিয়মিত ওষুধ খেতে হয়। ওষুধ খেতে যদি অবহেলা করেন তবে সত্যিই সেটা তার জন্য দুশ্চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়াবে।’ নিজের উচ্ছৃঙ্খল জীবন যাপনের জন্য বরাবরই শিরোনামে এসেছেন শিন। অনিয়ন্ত্রিত যৌনাচার, মদ ও মাদকে আসক্তির জন্য বারবার সমালোচনার মুখেও পড়তে হয়েছে তাকে। তবে নানা সমালোচনার পাশাপাশি সিনে জগতেও সমান জনপ্রিয় তিনি। তার ঝুলিতে রয়েছে পাল্টুন’, ‘এইট ম্যান আউট’ এবং ‘ওয়াল স্ট্রিট’-এর মতো হলিউডের জনপ্রিয় সব ছবি।

 



প্রসঙ্গত, ১৯৭৩ সালে ‘ব্যাডল্যান্ডস’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে আসেন শিন। আশির দশকে তার বেশ নামডাক হয়।  এ সময়ে ‘পাল্টুন, ‘ওয়াল স্ট্রিট’-এর মতো ছবিগুলো মুক্তি পায়। বড় পর্দার পাশাপাশি সমান খ্যাতি তার ছোট পর্দায়। ২০১১ সালে তিনি ছিলেন আমেরিকার টিভি চ্যানেলে সবচেয়ে পারিশ্রমিক হাঁকানো অভিনেতা। এ মাধ্যমে সর্বশেষ তিনি ‘দ্য গ্লোডবার্গস’ (২০১৫) সিরিয়ালে অভিনয় করেছেন।