বিশেষ সংবাদ:

কোহলির প্রথম ডবল সেঞ্চুরি

Logoআপডেট: শনিবার, ২৩ জুলাই, ২০১৬

এবি ক্রীড়া ডেস্ক
২০১১ সালে কিংস্টনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্টে অভিষেক হয়েছিল ভারতীয় প্রতিভাবান ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলির। আর সেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেই শুক্রবার ক্যারিয়ারের প্রথম ডবল সেঞ্চুরি করলেন এই ক্রিকেট তারকা।

 

অবশ্য ক্যারিবীয়দের বিপক্ষেই প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি। মজার ব্যাপার হল কোহলির মতো একজন ব্যাটসম্যানের পুরো ক্যারিয়ারের প্রথম ডবল সেঞ্চুরি এটা। এর আগে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটেও তার কোনো ডবল সেঞ্চুরি ছিল না! এর আগে টেস্টে তার সর্বোচ্চ ইনিংস ছিল ১৬৯।

 


২০১৪ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মেলবোর্নে তিনি এই রান করেছিলেন। ওই সফরেই তিনি ১৪১ ও ১৪৭ রানের আরো দুটি ইনিংস খেলেছিলেন। টি-টোয়েন্টি কিংবা ওয়ানডে। বিরাট কোহলির ব্যাটিংয়ের জুড়ি মেলা ভার। মারমার কাটকাট ব্যাটিং করতে পারেন তিনি। তাকে আউট করাই বোলারদের জন্য দুঃসাধ্য কাজ হয়ে দাঁড়ায়। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির স্পেশালিস্ট ব্যাটসম্যান কোহলিই কিনা টেস্টে ডবল সেঞ্চুরি করলেন। তিনি যে একজন নিরেট ব্যাটসম্যান সেটারই প্রমাণ দিলেন। বৃহস্পতিবার টেস্টের প্রথম দিনে ১৪৩ রান নিয়ে দিন শেষ করেন কোহলি।

 

শুক্রবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনে ডবল সেঞ্চুরি করে মধ্যাহ্ন বিরতিতে যান। ভারতের সংগ্রহ ৪ উইকেট হারিয়ে ৪০৪ রান। কোহলি ২০০ ও অশ্বিন ৬৪ রানে ব্যাট করছেন। অবশ্য বিরতির পর এসেই আউট হয়ে যান কোহলি। তার উইকেটটি নেন গ্যাব্রিয়েল। বিদেশের মাটিতে প্রথম কোনো ভারতীয় অধিনায়ক হিসেবে ডবল সেঞ্চুরি করার কৃতিত্ব দেখিয়েছেন বিশ্বসেরা এই ব্যাটসম্যান। এক এক করে ভারতের যখন সব কিংবদন্তি ক্রিকেটাররা অবসরে গেলেন। তখন তরুণ ক্রিকেটার হিসেবে দলে যুক্ত হলেন কোহলি। তাদের অবসরের পর ভারতের প্রথম বিদেশ সফরে তিনি সেঞ্চুরি করার কৃতিত্ব দেখান। সেই সময়ে তার সঙ্গে ভারত দলে যে তরুণরা যুক্ত হয়েছিল তাদের মধ্যে তিনিই প্রথম ডবল সেঞ্চুরি করে দেখালেন। প্রকৃতপক্ষেই তিনি একজন নেতা।