বিশেষ সংবাদ:

তাসকিন-সানির ‘অগ্নিপরীক্ষা’ ৮ সেপ্টেম্বর

Logoআপডেট: শনিবার, ২০ আগস্ট, ২০১৬

এবি ক্রীড়া ডেস্ক
বোলিং অ্যাকশন পরীক্ষা দিতে ৮ সেপ্টেম্বর অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের পেসার তাসকিন আহমেদ।

 

সেখানে ব্রিসবেনের ল্যাবে অ্যাকশন পরীক্ষা দেবেন তিনি। তার সঙ্গে যাচ্ছেন স্পিনার আরাফাত সানিও। গত ১৫ মার্চ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সাবেক বোলিং কোচ হিথ স্ট্রিকের সঙ্গে চেন্নাইয়ে গিয়ে বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দেন তাসকিন। সেখানে পরীক্ষা শেষে তাসকিনের বোলিং অ্যাকশনে ত্রুটি আছে বলে বিসিবিকে জানানো হয়। এরপর দীর্ঘ পাঁচমাস তাসকিনকে নিয়ে কাজ করার পর অ্যাকশনে সন্তুষ্ট হয়েই অস্ট্রেলিয়াতে পরীক্ষা দিতে পাঠাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

 

শনিবার (২০ আগস্ট) মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সংবাদমাধ্যমকে বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, ‘তাসকিন ও সানি সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে অস্ট্রেলিয়ায় যাবে। খুব সম্ভবত ৫-৬ তারিখের দিকে যাবে তারা। আর ৮ তারিখ তাদের পরীক্ষা দেওয়ার কথা রয়েছে।’ এদিকে সেপ্টেম্বরের ৩০ তারিখে দুইটি টেস্ট ও তিনটি ওয়ানডে খেলতে বাংলাদেশে আসবে ইংল্যান্ড দল। আর ওই সিরিজে তাসকিনকে দলে পেতে চায় বিসিবি।

 


চলতি বছর ভারতে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ডে ৯ মার্চ নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ম্যাচে পেসার তাসকিন ও স্পিনার আরাফাত সানীর বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। ভারতে আইসিসির অনুমোদিত ল্যাবে পরীক্ষা দেওয়ার পর নিষিদ্ধ হন বাংলাদেশের এই দুই বোলার। এরপর থেকেই নিজেদের বোলিং অ্যাকশন সংশোধনে কাজ করে যাচ্ছেন তাসকিন ও সানী। এরই মধ্যে বিসিবির বোলিং অ্যাকশন রিভিউ কমিটির নেওয়া পরীক্ষায় পাস করে গেছেন তাসকিন। বোলিং অ্যাকশন রিভিউ কমিটি আশাবাদী, তাসকিন আইসিসির গবেষণাগার থেকে মুক্তির বার্তা নিয়েই ফিরবেন। তাসকিনের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার বিমানের বসতে পারেন স্পিনার সানীও। বিসিবির বোলিং রিভিউ কমিটি সানীর বোলিংয়েও সবুজ সংকেত দেখিয়েছে।