বিশেষ সংবাদ:

নাটকপাড়ায় এক টিকিটে দুই নাটক

Logoআপডেট: সোমবার, ২৩ জুলাই, ২০১৮

এবি প্রতিবেদক
একই সাথে দুই নাটক নিয়ে মঞ্চে আসছে প্রতিশ্রুতিশীল থিয়েটার সংগঠন সংস্কার নাট্যদল।আজ ২৩ জুলাই সোমবার নাটকপাড়া-খ্যাত বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত হবে নাটক দুটির উদ্বোধনী মঞ্চায়ন।

সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় জাতীয় নাট্যশালার এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে প্রদর্শিত হবে নতুন এই যুগল নাটক। নাটক দুটি হচ্ছে ‘ভুল স্বর্গ’ ও ‘মহাপতঙ্গ’।

কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘ভুল স্বর্গ’ নাটকটির নব-নাট্যরূপ ও নির্দেশনা অধ্যাপক ড. ইউসুফ হাসান অর্ক। অপরদিকে আবু ইসহাক রচিত নাটক ‘মহাপতঙ্গ’-কে নাট্যরূপ দিয়েছেন ড. রুবাইয়াৎ আহমেদ। নাটকটি নির্দেশনায় রয়েছেন হাবিব মাসুদ।

‘ভুল স্বর্গ’ নাটকের কাহিনিতে দেখা যাবে- নেহাত একজন বেকার লোক। কিন্তু পটে চিত্র আঁকা, মাটির ঢেলা দিয়ে নানা বস্তু তৈরি করাসহ নানা রকম শখ তার। এ নিয়ে বাড়ির লোকদের কাছে নেহাতের লাঞ্ছনার সীমা নেই। তারপরও স্বভাবগত পাগলামি কিছুতেই ছাড়তে পারেনি সে। এমনি সারাজীবন অকাজে পার করে মৃত্যুর পর জানতে পারে তার স্বর্গে যাওয়া মঞ্জুর। কিন্তু স্বর্গের দূত তাকে ভুল করে অকেজো লোকের স্বর্গে না পাঠিয়ে কেজো লোকের স্বর্গে দিয়ে আসে। ভুল স্বর্গে গিয়ে তৈরি হয় নানা বিপত্তি। এমনি ঘটনাপ্রবাহে নির্মিত হয়েছে নতুন নাটক স্বর্গ’।
পাশাপাশি ‘মহাপতঙ্গ’ নাটকের কাহিনি গড়ে উঠেছে মানবিক অবক্ষয় নিয়ে। যেখানে ছোট একটি শহরের একটি বাড়ির দেয়ালের ফোঁকরে বাস করে এক চড়ুই দম্পতি। বাসায় তাদের দু’টি ছোট ছানা রয়েছে। বহু আদরে তারা বাচ্চাদের বেঁচে থাকার কায়দা-কানুন শেখায়। একবার গল্প বলতে বলতে এক মহাপতঙ্গের কথা শুনায়। সেখানে মানুষের মানবিকতার জয়গানের কথা বলে। এমন সময় আবার আকাশে দেখা যায় মহাপতঙ্গের।

পুরুষ চড়ুই ঘরে ছোট ছোট বাচ্চা আর স্ত্রীকে রেখে বের হয় খাদ্যের খোঁজে। দো-পেয়ে দৈত্য দ্বারা চালিত মহাপতঙ্গ বড় বড় ডিমের মতো কি যেন ফেলে। এ (বোম) বড় বড় ডিম ফেটে সব কিছু চৌচির হয়ে যায়। তছনছ হয়ে যায় চড়ুইয়ের সুখের সংসার। আর্ত-চিৎকারে ফেটে পড়ে চড়ুই পাখিটি। পুরুষ চড়ুই যেখানে মানুষের জয়গান করেছিল, সেই মানুষের কারণেই তৈরি হয়েছে হত্যা, ধ্বংস যজ্ঞের। ছি ছি শব্দ তোলে গণহত্যাকারী দো-পেয়ে দৈত্যদের বিরুদ্ধে। এমনি গল্পে আবৃত হয়েছে নাটক ‘মহাপতঙ্গ’।

সংস্কার নাট্যদলের কর্মশালাভিত্তিক দুই নাটকে ১০ মিনিট মধ্যবিরতি ছাড়া ব্যাপ্তিকাল ১ ঘণ্টা। মনামী ইসলাম কনকের সঙ্গীত পরিকল্পনায় নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করবেন- ইভা, পৃথা দে, সুজন কীর্তনিয়া, জুলি ইসলাম, মাসুদ, রত্না ইসলাম, ইসমাইল, নদী, বাপ্পী সাইফ আরিয়ান, আশিক, টোটন, শিহাব, প্রিন্স ও সাজ্জাদ প্রমুখ। এক টিকিটে যুগল এই নাটকের প্রযোজনা অধিকর্তা হিসেবে রয়েছেন সংস্কার-এর দলপ্রধান এন. ডি চঞ্চল।