বিশেষ সংবাদ:

‘তনুশ্রী পদক ২০১৮’ পেলেন বাকার বকুল

Logoআপডেট: শনিবার, ২৭ অক্টোবর, ২০১৮

এবি প্রতিবেদক

গতকাল ২৬ অক্টোবর প্রদান করা হয়েছে স্বনামধন্য থিয়েটার সংগঠন নাট্যধারা প্রবর্তিত ‘তনুশ্রী পদক’ ২০১৮। প্রতি বছরের মতো এবারও একজন মঞ্চপ্রাণ নাট্যতরুণকে তার কাজের মূল্যায়ন, স্বীকৃতি, উৎসাহ এবং প্রণোদনা জোগাতে তাৎপর্যবহ এ সম্মাননা প্রদান করবে নাট্যধারা। এবার পদকটি পেয়েছেন থিয়েটার অঙ্গনের এই সময়ের প্রতিশ্রুতিশীল ও প্রতিভাবান নাট্যপ্রাণ তরুণ বাকার বকুল।

নাট্যধারার অকাল প্রয়াত নাট্য ও নৃত্যশিল্পী তনুশ্রীর স্মৃতি এবং অবদানকে স্মরণ করে গত ১৭ বছর ধরে একজন সৃজনশীল নাট্যতরুণকে উৎসাহমূলক এ সম্মাননা দিয়ে আসছে নাট্যদলটি। সে ধারাবাহিকতায় শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির স্টুডিও থিয়েটার হলে অনুষ্ঠিত ‘তনুশ্রী পদক’-এর ১৮তম আসরে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার।

অঞ্জনস নিবেদিত এ আয়োজনে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের সভাপতিমণ্ডলির সদস্য নাট্যজন লাকী ইনাম, সেক্রেটারি জেনারেল কামাল বায়জিদ এবং অঞ্জনসের প্রধান নির্বাহী শাহীন আহমেদ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নাট্যধারার প্রধান সম্পাদক মাসুদ পারভেজ মিজু।

তনুশ্রী পদক প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘থিয়েটারের সঙ্গে সম্পৃক্ত, বয়সে তরুণ, সৃজনশীল কাজে উল্লেখযোগ্য স্বাক্ষর রাখা একজন নাট্যকর্মীকে প্রতিবছর তনুশ্রী পদকের জন্য মনোনীত করা হয়। এ ক্ষেত্রে যোগ্যতম নাট্যতরুণকেই যাতে পদক প্রদান করা যায় সেজন্য গোপনীয় তিনটি প্রক্রিয়ায় মনোনয়ন ও নির্বাচন সম্পন্ন করা হয়, যেখানে সংশ্লিষ্ট থাকেন দেশের প্রথিতযশা নাট্যগুরু এবং খ্যাতিমান নাট্যব্যক্তিত্বরা।’

প্রসঙ্গত, ১৯৯৯ সালে মরণব্যাধী ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে অকালে প্রাণ হারান নাট্যধারার তরুণ নাট্যকর্মী তনুশ্রী। তারুণ্য ও সৃজনশীলতার প্রতীক তনুশ্রীকে অনাগতকালের তারুণ্য ও সৃজনশীলতার সাথে সম্পৃক্ত রাখার উদ্দেশ্যে ২০০১ সাল থেকে  এই পদকের প্রবর্তন করা হয়।

উল্লেখ্য, এ নিয়ে ১৮ বছরে পা রাখলো ‘তনুশ্রী পদক’। ইতোমধ্যে নাট্যধারা ১৭ জন সৃজনশীল নাট্যতরুণকে সম্মাননা প্রদান করেছে। ২০০১ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত যারা তনুশ্রী পদক পেয়েছেন তারা হলেন- সাইদুর রহমান লিপন, নাসিরুল হক খোকন, আশীষ খন্দকার, ত্রপা মজুমদার, আমিনুর রহমান মুকুল, কামালউদ্দিন কবির, দিলীপ চক্রবর্তী, জগলুল আহমেদ, রাহুল আনন্দ, সামিনা লুৎফা নিত্রা, শুভাশিস সিনহা, দেবাশীষ ঘোষ, সুদীপ চক্রবর্তী, রুমা মোদক, অনিমেষ সাহা লিটু, তপন হাফিজ এবং শায়লা শারমিন। সেই ধারাবাহিকতায় এবার আলোচিত এই পদকে ভূষিত হয়েছেন বাকার বকুল।