বিশেষ সংবাদ:

‘সম্প্রীতি-বাতিঘর নাট্যোৎসব’-এর সমাপ্তি

Logoআপডেট: রবিবার, ২৮ অক্টোবর, ২০১৮

এবি প্রতিবেদক
‘মানুষের চেয়ে বড় কিছু নাই নহে কিছু মহিয়ান’ শ্লোগানে নগরীর আগারগাঁওয়ে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হলো তিন দিনব্যাপী সম্প্রীতি-বাতিঘর নাট্যোৎসব।

আয়োজনে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নেয় আশপাশের নাট্যমোদী প্রচুর দর্শক। আয়োজনকে ঘিরে শিশুদের পাশাপাশি বড়দের মধ্যেও দেখা মিলেছে বেশ আগ্রহ।

গতকাল সন্ধ্যায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক `গ্রন্থিকগণ কহে’ মঞ্চায়নের মধ্য দিয়ে শেষ হলো জমকালো এই নাট্যাসর। তিন দিনব্যাপী এ উৎসবের সমাপনী দিনে আজ বাতিঘর সাংস্কৃতিক বিদ্যালয়ের মিরপুর শাখা পরিবেশন করে নাটক ‘মানুষ’ এবং উত্তরা শাখা পরিবেশন করে ‘বাল্মীকি প্রতিভা’।
নাটক মঞ্চায়ন শেষে বাতিঘরের পক্ষ থেকে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন এবং সম্প্রীতি টিমের সকল সদস্যকে কৃতজ্ঞতা জানানো হয়।

একইভাবে ২৬ অক্টোবর প্রদর্শনী শুরু হয় বাতিঘরের ওয়ারী শাখার নাটক ‘জুতা আবিষ্কার’ মঞ্চায়নের মধ্য দিয়ে। এদিন ড্যাফোডিল রোটার্যাক্ট ক্লাব পরিবেশন করে নাটক ‘খুকির জীবন কাহিনি’। এরপর ছিল বাতিঘর বনশ্রী দলের নাটক ‘সুন্দর মন’। সবশেষে মঞ্চায়িত হয় বাতিঘর লালমাটিয়া দলের নাটক ‘তাসের দেশ’।
এর আগে গত ২৫ অক্টোবর শুরু হয় তিন দিনব্যাপী বর্ণাঢ্য এ উৎসব। এতে উদ্বোধনী প্রদর্শনীতে ছিল অলস্টারস ড্যাফোডিল-এর নাটক ‘গাহি সাম্যের গান’। এরপর পরিবেশিত হয় বায়তুল মোশাররফ সিনিয়র মাদ্রাসার নাটক ‘কোরআন সূত্রের জিহাদিগণ’। দিনের তৃতীয় প্রদর্শনীতে ছিল বঙ্গরঙ্গ নাট্যদলের নাটক ‘সৎপথ’ এবং সমাপনী মঞ্চায়নে প্রদর্শিত হয় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় দলের নাটক ‘ওয়ার্ড নাম্বার-৬’।