বিশেষ সংবাদ:

মিমের অশ্লীল ভিডিও নিয়ে আবারও আলোচনার ঝড়

Logoআপডেট: সোমবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৪

বিশেষ প্রতিবেদক
মিডিয়াতে প্রতিদিনই প্রকাশিত হচ্ছে কোনো না কোনো সেলিব্রেটির স্ক্যান্ডাল। তারকাদের জীবনে স্ক্যান্ডাল কখনো আশীর্বাদ আবার কখনো আসে অভিশাপরূপে। শুধু সেক্স স্ক্যান্ডাল দিয়ে রাতারাতি বড় তারকা বনে যাওয়া হলিউডের কিম কার্দেশিয়ানের পথই কি খুঁজছেন আমাদেও তারকারা?
যেন সেই মোহেই রাতারাতি জনপ্রিয় হতে পশ্চিমা তারকাদের মতো স্ক্যান্ডালে জড়িয়ে পড়ছে বাংলাদেশের সেলিব্রেটিরা।

 

নায়িকা, গায়িকা এমনকি উপস্থাপিকাদের যৌনতার ছবি চলে আসছে ইন্টারনেটে। ইউটিউব এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ছাড়াও  সিডি বা ডিভিডি আকারে বাজারজাত হয়ে ভিডিও ক্লিপগুলো অতি সহজেই চলে যাচ্ছে সাধারণ মানুষের হাতে হাতে।

 

আলোচিত মডেল প্রভা, তিন্নি-হিল্লোল, প্রেমা, শখ, মিলা, অরুণ চৌধুরী, প্রভার নগ্ন ভিডিওর ধারাবহিকতায় উপস্থাপিকা চৈতীর নগ্ন ভিডিও নিয়ে শোবিজে আলোচনা কম হয়নি। এসব ভিডিও ক্লিপ বাজারে ছড়িয়ে পড়ার পর নিজেদের কীর্তি নিয়ে টেনশনে পড়েছেন এখানকার টিভি জগতের একাধিক মডেল ও নায়িকা।

 

এই সঙ্কট কাটতে না কাটতেই চ্যানেল আই-লাক্স সুপারষ্টার বিদ্যা সিনহা মিমের অশ্লীল ভিডিও বের হয় ইন্টারেনেটে। বিভিন্ন ব্লগ সাইডে এখন হরহামেশাই পাওয়া যাচ্ছে মিমের এ ভিডিও চিত্র। কিছুদিন আগে একটি মুভিতে অংশ নেয়ার জন্য দেশত্যাগ করলে বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় নায়িকা বর্ষাকে নিয়েও চারিদিকে কানাঘুষা শুরু হয়।

 

স্বয়ং তার স্বামী নায়ক অনন্ত তার সঙ্গে অন্য পুরুষের সম্পর্কের কথা দাবি করেন। বিষয়টি নিয়ে মিডিয়ায় কম পানি গোলা হয়নি। প্রথমবারই মীমের নগ্ন ভিডিও নিয়ে অনলাইনে ব্যপক সাড়া ফেলেছিল। নতুন করে আবারও মিমের ভিডিও প্রকাশের খবরটি গরম করে তুলেছিল মিডিয়াঙ্গনকে।

 

এখানে মিমের শয্যা সঙ্গীকে চিনতে না পারলেও তাকে  ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটার বলে ধারণা করা হচ্ছে। এই ক্রিকেটারের সাথে মিমের উপস্থিতি ছিলো সস্তস্ফুর্ত ভাবে যৌন আবেদনে ভরপুর এবং প্রানবন্ত। যা প্রমাণ করে মিমের সেচ্ছায় অংশগ্রহন। বিদেশের ক্রিকেটারের সাথে এ তারকার অন্তরঙ্গতা কি ভাবে গড়ে উঠলো এই প্রশ্ন এখন সবাইকে ভাবিয়ে তুলেছে। সবার মনেই ঘুরপাক খাচ্ছে তবে কি মিম টাকার বিনিময়ে বিছানায় পেশাদার হয়ে উঠেছেন !

 

উল্লেখ্য, অভিযোগ উঠেছে এবার বিপিএলে বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্জাইজিগুলো (দলের স্বত্তাধিকারীরা) বিদেশী খেলোযাড়দের মনোরঞ্জন করতে টাকার বিনিময়ে এ দেশের কয়েকজন মডেল ও অভিনেত্রী ভাড়া করেছিল। পাশাপাশি মিমের পর নামকরা আরও কয়েকজন তারকার ভিডিও প্রকাশ হবার আশঙ্কাও দেখা দিয়েছে। যদি তাই হয় তবে সাধারণ মানুষের কাছে দেশের শিল্প-সংস্কৃতি তার ইমেজ হারাবে।

 


এদিকে মীমের একটি ঘনিষ্ট সূত্র দাবি করেছে ইন্টারনেটের এই ভিডিওটি মিমের নয়। সূত্রটি সবাইকে ছবিটি ভাল করে দেখার অনুরোধ জানিয়েছে। সূত্রেটির দাবি- ভিডিওটিতে যে মেয়েটি ছিল তা আমাদের বিদ্যা সিনহা সাহা মিম নন, সে ভারতীয় পর্ণস্টার অঞ্জলি।

 

বলা হয়েছে, বিগত বেশ কিছুদিন  ধরে ফেসবুকে এক শ্রেণীর স্বার্থান্বেষী মহল অ্যপ ইনস্টলের মাধ্যমে ফেসবুক একাউন্ট হ্যাক কিংবা ভাইরাস ছড়ানোর জন্য দেশের বিভিন্ন তারকাদের নিয়ে এ ধরণের প্রতারণার আশ্রয় নিচ্ছে। তাই নিজের ফেসবুক একাউন্টকে হ্যাকের হাত থেকে বাঁচাতে কিংবা কম্পিউটারটিকে ভাইরাসের কবল থেকে রক্ষা করতে এ ধরণের প্রতারণা থেকে সবাইকে দূরে থাকতে অনুরোধ জানিয়েছে।