বিশেষ সংবাদ:

সুবীর নন্দী-ছন্দার নজরুল সঙ্গীতের অ্যালবাম প্রকাশনা

Logoআপডেট: বুধবার, ২৪ মে, ২০১৭

এবি প্রতিবেদক

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৮তম জন্মজয়ন্তীকে ঘিরে প্রকাশিত হলো দেশের প্রখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী সুবীর নন্দী ও ছন্দা চক্রবর্ত্তীর গাওয়া নতুন অ্যালবাম ‘মোরা ছিনু একেলা’। জি-সিরিজের ব্যানারে প্রকাশিত হয়েছে নজরুল সঙ্গীতের নতুন এ অ্যালবামটি।

এ উপলক্ষে ২৪ মে বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় রাজধানীর বেইলি রোডস্থ ক্যাফে থার্টি-থ্রি রেস্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত হয় ‘মোরা ছিনু একেলা’-এর জমকালো প্রকাশনা উৎসব। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নজরুল ইনস্টিটিউট ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ইমেরিটাস রফিকুল ইসলাম।

এতে বিশেষ অতিথি থেকে অ্যালবামের দুই প্রজন্মের দুই গুণীশিল্পীকে শুভেচ্ছা জানান বিশিষ্ট নজরুল সঙ্গীতগুরু সুধীন দাস, কবি নজরুলের নাতনি খিলখিল কাজী, নজরুল ইনস্টিটিউটের নির্বাহী পরিচালক মোঃ আব্দুর রাজ্জাক ভূঞা এবং সরকারি সঙ্গীত কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর কৃষ্টি হেফাজ, লোকসঙ্গীত শিল্পী ও গবেষক ইন্দ্রমোহন রাজ বংশী, সঙ্গীতশিল্পী ড. লীনা তাপসী খান, বুলবুল মহলানবীশ, রেবেকা সুলতানা, নজরুল গবেষক ইরশাদ আহমেদ শাহীন এবং জি-সিরিজ ও অগ্নিবীণার কর্ণধার নাজমুল হক ভূইয়াসহ সঙ্গীতাঙ্গনের বিশিষ্টজনেরা।

 

নতুন অ্যালবাম প্রসঙ্গে সুবীর নন্দী বলেন, ‘আমদের প্রাণের কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৮তম জন্মজয়ন্তীতে অনুজপ্রতিম নজরুল শিল্পী ছন্দা চক্রবর্ত্তীর অনুপ্রেরণায় তার সাথে এই সঙ্গীতাঞ্জলি অ্যালবামের গান গেয়েছি।’ 

তিনি বলেন, ‘নজরুল সঙ্গীতের প্রতি সবসময়ই আমার একটা বিশেষ আগ্রহ বা ভালো লাগা ছিল। অনেকেই প্রশ্ন করেন, কেন এই পর্যায়ে এসে নজরুল সঙ্গীতের অ্যালবাম করলাম। এর একটাই কারণ, সেটি হচ্ছে- আমি ভেবেছি, তরুণরা নানারকম গান নানাভাবে গাইছে। আমি সবার ভালোবাসায় যেখানে আছি, এখান থেকে যদি নজরুলের গান করি তাহলে নতুন প্রজন্মও নজরুলের গানের প্রতি আগ্রহ দেখাবে। কেননা, নতুনরা প্রবীণদের গানই এখন বেশি গাইছে বা গাওয়ার চেষ্টা করছে।’

 

নজরুল সঙ্গীতের অন্যতম মেধাবী শিল্পী ছন্দা চক্রবর্ত্তী বলেন, ‘শ্রদ্ধেয় সঙ্গীতশিল্পী সুবীর নন্দীর মতো গুণী একজন শিল্পীর সাথে এই অ্যালবামে গান গেয়েছি। এটি আমার জন্য পরম সৌভাগ্যের। মোট দশটি গানে এই অ্যালবামটি সাজানো হয়েছে। আমরা আত্মার উপলব্ধি থেকে প্রাণের কবি নজরুলের অমৃত কাব্যবাণী উচ্চারণের চেষ্টা করেছি। আশা করি সবার ভালো লাগবে।’

 

ফেরদৌস বাপ্পির প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় শুভেচ্ছাপর্ব শেষে প্রকাশিত অ্যালবাম থেকে হৃদস্পর্শী নজরুল সঙ্গীত গেয়ে উপস্থিত সবাইকে সুরের মূর্ছনায় ভাসান নন্দিত দুই কণ্ঠশিল্পী সুবীর নন্দী ও ছন্দা চক্রবর্ত্তী। এ সময় উপভোগকারী উপস্থিত শ্রোতা-শুভাকাঙক্ষী এবং সঙ্গীতাঙ্গনের বরেণ্য শিল্পী ও সঙ্গীতজনেরা তাদের জোর করতালিতে অভিনন্দিত করেন।

 

সঙ্গীত পরিচালক বদরুল আলমের যন্ত্রানুষঙ্গে দুই প্রজন্মের দুজন গুণীশিল্পী সুবীর নন্দী ও ছন্দা চক্রবর্ত্তীর কণ্ঠে নজরুলের প্রচলিত ও অপ্রচলিত এ গানগুলো সঙ্গীতের ভাণ্ডারকে আরো সমৃদ্ধ করবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। অ্যালবামটি উৎসর্গ করা হয়েছে বাংলাদেশে নজরুলচর্চার অন্যতম রূপকার সুধীন দাসের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধায়।

 

‘মোরা ছিনু একেলা’ অ্যালবামের গানগুলোর মধ্যে সুবীর নন্দী গেয়েছেন, ‘সন্ধ্যা গোধূলি লগনে কে’, ‘চোখের নেশার ভালোবাসা’, ‘নিশি পবন! নিশি পবন!’ এবং ‘তোমারেই আমি চাহিয়াছি প্রিয়’। ছন্দা চক্রবর্ত্তীর কণ্ঠে শোনা যাবে ‘আনারকলি! আনারকলি!’, ‘সেদিন ছিল কি গোধূলি লগন’, ‘কে তুমি দূরের সাথী’ এবং ‘বলেছি তুমি তীর্থে আসিবে’। এ ছাড়াও ‘মোরা আর জনমে হংসমিথুন ছিলাম’ এবং ‘মোরা ছিনু একেলা’ গানে দ্বৈত কণ্ঠ দিয়েছেন সুবীর নন্দী ও ছন্দা চক্রবর্ত্তী।