বিশেষ সংবাদ:

এবার অস্ট্রেলিয়া মাতাবেন আগুন-ন্যান্সি

Logoআপডেট: শনিবার, ১৩ অক্টোবর, ২০১৮

এবি প্রতিবেদক

হৃদছোঁয়া গানে-সুরে সঙ্গীতপ্রেমীদের বিনোদিত করতে অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছেন দেশের জনপ্রিয় দুই সঙ্গীতশিল্পী আগুন ও ন্যান্সি। সেখানে তিনটি শোতে অংশ নিবেন নন্দিত এই দুই তারকা। এরমধ্যে এনটিভির আয়োজনে ‘বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল’-এ গাইবেন তারা। এছাড়া অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী বাঙালিদের আয়োজনে দুটি অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করবেন আগুন ও ন্যান্সি।

এ বিষয়ে ন্যান্সি বলেন, ‘আমরা আগামী ২৩ তারিখে অস্টেলিয়ায় যাব। সিডনি, ক্যানভেরা ও গোলকোস্টে তিনটি শো করার কথা রয়েছে। আমি এর আগে ২০০৯ সালে অস্ট্রেলিয়ায় শো করেছি। এবার দ্বিতীয়বারের মতো যাচ্ছি। ওই সময় আমি একা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছিলাম। এবার আগুন ভাই যাচ্ছে। আশা করি অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী বাঙালিদেরকে ভালোভাবে গান শোনাতে পারবো।’

প্রসঙ্গত, আগুনের সঙ্গীত জীবন শুরু হয় ১৯৮৮ সালে ‘সাডেন’ ব্যান্ডের ভোকাল হিসেবে। সাডেন ব্যান্ড ও আগুনের একক এ্যালবাম ওগো প্রেয়োসীর গানগুলোর মধ্যে – বৈশাখী মেলা, উত্তাল সমুদ্র ও ভালোবাসি’ শ্রোতাপ্রিয়তা লাভ করে। তিনি ১৯৯২ সালে সাডেন ব্যান্ড ত্যাগ করেন। ১৯৯২ সালে সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত কেয়ামত থেকে কেয়ামত চলচ্চিত্রের গান গাওয়ার মাধ্যমে তার চলচ্চিত্রের গানে অভিষেক হয়। ১৯৯৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্রটিতে তার গাওয়া গানগুলো জনপ্রিয়তা লাভ করে। চলচ্চিত্রে গান গাওয়ার পাশাপাশি তিনি ১৫টি এ্যালবামেও কণ্ঠ দিয়েছেন। ২০০০ সাল পর্যন্ত তিনি নিয়মিত এ্যালবামের গানে কণ্ঠ দিলেও পরে তিনি তা কমিয়ে দেন। সঙ্গীতশিল্পী হিসেবে মিডিয়ায় আত্মপ্রকাশ করলেও আগুন এখন টিভি মিডিয়ার ব্যস্ত একজন অভিনেতা।

অপরদিকে, দেশের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি গেল অর্ধযুগ ধরে তিনি বাংলাদেশের সঙ্গীতাঙ্গনকে মাতিয়ে রেখেছেন নিজের কণ্ঠের জাদুতে। কেরিয়ারের শুরু থেকেই চলচ্চিত্রের গানের মাধ্যমে সফলতা পেয়েছেন তিনি। প্লেব্যাকের একটি নির্ভরযোগ্য কণ্ঠ হিসেবে শক্ত অবস্থান গড়েছেন অনেক আগেই। ব্যস্ত এই সঙ্গীতশিল্পী দেশ-বিদেশে ছড়িয়ে যাচ্ছেন তার জাদুকরি কণ্ঠপ্রতিভা।

 

এবি/রায়হান