বিশেষ সংবাদ:

একগুচ্ছ নতুন নাটকে সরব ছিল মঞ্চাঙ্গন

Logoআপডেট: বৃহস্পতিবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৫

২০১৫-এর শুরুর দিকটা অবিরাম আতঙ্ক-উৎকন্ঠায় কাটলেও বছরের শেষটা রাজধানীবাসীর জন্য বর্ণীল ছন্দময়ই বলা যায়। বিশেষ করে দেশব্যাপী রাজনৈতিক অস্থিরতা আর অপ্রত্যাশিত নানা অঘটন ডিঙ্গিয়ে খানিকটা স্বস্তির স্বাদ নিতে নিতে আজ অস্তমিত হতে চললো বছরের শেষ সূর্য। অগ্রগামী এ বাংলার বিভিন্ন মাধ্যম জাতিকে কাঙ্খিত সাফল্য দিতে না পারলেও সময়ের রথেচড়ে জাতীর সুখকর কতগুলো অর্জনের সাথে নতুনমাত্রা যোগ করেছে আমাদের সংস্কৃতিক অঙ্গন। বিশেষ করে প্রতি বছরের ন্যায় ঢাকার মঞ্চাঙ্গন ২০১৫ সাল জুড়েও নানা আয়োজনে ছিল মুখরিত। এরমধ্যে একগুচ্ছ নতুন নাটকের ছন্দময় উষ্ণতা নাট্যাঙ্গনে দিয়েছে ভিন্নমাত্রা। যদিও থিয়েটার অঙ্গনের প্রথম সারীর বেশিরভাগ দলই এবার নতুন নাটক মঞ্চে তোলেনি। গেল বছরের তুলনায় এবার নতুন নাটকের সংখ্যাও নেহাত নগন্য। এ বছর ঢাকার মঞ্চে আসা নতুন নাটক নিয়ে লিখেছেন- ফারুক হোসেন শিহাব

 

দৃষ্টিপাতের ‘কয়লা রঙের চাদর’
বেশ কিছু দর্শকনন্দিত প্রযোজনার কাতারে নতুন প্রয়াস ‘কয়লা রঙের চাদর’র সংযোগ ঘটিয়েছে দেশের প্রথম সারির থিয়েটার দল দৃষ্টিপাত নাট্য সংসদ। প্রতিটি মানুষের জীবনে ঘটে যাওয়া সকল ঘটনাই সত্য। এই সত্যের একাংশ থেকে যায় অপ্রকাশিত। এই দ্বন্ধই নাটকের মূল অনুসঙ্গ। হৃদয়ের গহীন থেকে গহীনস্তরের চিত্ত খুঁড়ে অপ্রকাশিত সত্যকে অনুসন্ধান করা হয়েছে ‘কয়লা রঙের চাদর’ নাটকে। আত্মউপলব্দির এ নাটকটি রচনা ও নিদের্শনা দিয়েছেন নাট্যজন ম.আ. সালাম।

 

থিয়েটার ফোকাসের ‘যমুনা’
বিলেতের অক্সফোর্ড শহরে নাটকের দল থিয়েটার ফোকস দলের দ্বিতীয় প্রযোজনা ‘যমুনা’ নিয়ে ঢাকায় আসে এ বছর।  যদিও এ নাটকটি ঢাকায় আসার আগেই অক্সফোর্ড, বার্মিংহাম আর লন্ডনের দর্শকদের মধ্যে আলোড়ন সৃষ্টি করে। বাংলাদেশে প্রথম নাটকটির  দুটি প্রদর্শনী হয়  ৯ ও ১০ জানুয়ারি সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটমন্ডলে। এ ছাড়া বাংলাদেশ শিল্পকলার স্টুডিও থিয়েটার হলে ১১ ও ১২ জানুয়ারি নাটকটি আবার মঞ্চায়িত হয়। পরবর্তীতে আরো কয়েকটি প্রদর্শনী হয় যমুনা’র। বাংলাদেশের একজন ভাস্কর ও মুক্তিযোদ্ধা নারীর ব্যক্তিগত লড়াই ও বেঁচে থাকার গল্প নিয়ে নির্মিত এ নাটকটি ঢাকার দর্শকমহলে বেশ প্রশংসিত হয়। তাই সেলিনা শেলী রচিত ও মোহাম্মদ আলী হায়দার নির্দেশিত এ নাটকটি এদেশের নাট্যাঙ্গনে বেশ গুরুত্ব বহন করে।

 
তুরঙ্গমী’র ‘ওয়াটারনেস’
সারা পৃথিবীতেই ডান্স থিয়েটার নিয়ে খুব কম কাজ হয়। আর সেই ডান্স থিয়েটার ২১ জানুয়ারি ঢাকার মঞ্চে এনে খুব সাহসী কাজ করে বাংলাদেশের প্রথম ডান্স থিয়েটার গ্রুপ তুরঙ্গমী। শিল্পকলার জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে পরিবেশিত হয় বাংলাদেশের প্রথম ডান্স থিয়েটার ‘ওয়াটারনেস’। নৃত্যনাট্যটি লিখেছেন ভারতের ধীমান ভট্টাচার্য। নৃত্য ভাবনা, পরিকল্পনা ও নির্দেশনা দিয়েছেন পূজা সেনগুপ্ত।

 
ভিশন থিয়েটারের ‘গালিভারের সফর’
এ বছরের ২৫ জানুয়ারি মঞ্চে নতুন নাটক নিয়ে আসে ভিশন থিয়েটার। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে দলের নবম প্রযোজনা ‘গালিভারের সফর’-এর উদ্বোধনী মঞ্চায়ন অনুষ্ঠিত হয়। আবুল মনসুর আহমদের গল্প অবলম্বনে নাটকটি লিখেছেন গোলাম সারোয়ার এবং নির্দেশনা দিয়েছেন গোলাম শাহারিয়ার সিক্ত।

 
মৈত্রী থিয়েটারের ‘পাখি’
বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার স্টুডিও থিয়েটার হলে ‘পাখি’ উড়া শুরু করেছিল ২৫ ফেব্রয়ারী সন্ধ্যা ৭টায়। মনপাখি শুধু উড়েনি, দর্শকসম্মুখে করেছে শিল্পের ঝাপটা-ঝাপটিও। মৈত্রী থিয়েটারের প্রযোজনায় মনোজ মিত্র রচিত ‘পাখি’ নাটকটির নির্দেশনা দিয়েছেন তরুণ নাট্যজন হামিদুর রহমান পাপ্পু।

 
বাতিঘরের ‘ঊর্ণাজাল’
জাতীয় নাট্যশালায় নতুন নাট্যদল বাতিঘরের নতুন প্রযোজনা ‘ঊর্ণাজাল’র উদ্বোধনী মঞ্চায়ন ছিল ৪ মার্চ। তারুণ্যদীপ্ত নাট্যপ্রতিভা বাকার বকুল রচিত ও নির্দেশিত এই নাট্যাঙ্কনে চিরায়িত বাংলার কাঞ্চনডাঙা গ্রামে এক সময় নৌকা বাইচ, মেলা, যাত্রাপালা, পুঁথিপাঠ থেকে শুরু করে কী-না হতো। অথচ! রাজনৈতিক পট পরিবর্তনের সাথে সাথে এই গ্রামে বাসা বাঁধতে শুরু করে মৌলবাদ। বিকশিত হতে থাকে সাম্প্রদায়িকতা ও ধর্মন্ধতা। এমনি ঐতিহ্যের স্মৃতিচিত্র আর সমসাময়িক নানা সংকট নিয়ে গড়ে উঠেছে ‘উর্ণজাল’ নাটকের শরীর। 

 
ঢাকা মৌলিক নাট্যদলের ‘অঙ্কুর’
ঢাকা মৌলিক নাট্যদলের দ্বিতীয় প্রযোজনা ‘অংকুর’ মঞ্চে আসে চলতি বর্ষপঞ্জিকার ১১জুন। নাট্যজন কাজী রফিক রচতি এ নাটকটি নির্দেশনা দিয়েছেন সম্ভাবনাময় নাট্যকর্মী সাজু আহমেদ। সমসাময়িক রাজনীতিসহ ঘুণেধরা বৈশিক হিংস্র রাজনীতিরনীতি-সংস্কৃতির নানা বিষয় শিল্পের বর্ণীল চালচিত্রে উঠে এসেছে নাটকে। যেখানে অন্ধকার জগতের বাসিন্দা রপবতী রূপবানের মর্মস্পর্শক জীবনাংকের কথামালায় অলঙ্কিত হয়েছে নাটকটি।

 
মণিপুরী থিয়েটারের ‘লেইমা’
দীর্ঘ তিন বছর পর 'লেইমা' নামের নতুন নাটক মঞ্চে আনে মণিপুরী থিয়েটার। ১০ এপ্রিল মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জস্থ ঘোড়ামারা গ্রামে মণিপুরি থিয়েটারের নটমন্ডপে ছিল ‘লেইমা’র প্রথম রজনী। স্প্যানিশ কবি ও নাট্যকার ফেদেরিকো গারসিয়া লোরকা’র ইয়ের্মা অবলম্বনে বাংলা ও বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরি ভাষায় ‘লেইমা’র নাট্যরূপ ও নির্দেশনা দিয়েছেন শুভাশীষ সিনহা। একজন বন্ধ্যা নারীর মনস্তাত্ত্বিক সংকটকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে ‘লেইমা’ নাটকের উপাখ্যান। নাটকপাড়া খ্যাত ঢাকাস্থ শিল্পকলা একাডেমী ও ঢাবি’র নাটমন্ডলে নাটকটির ৫টি প্রদর্শনীকে ঘিরে ২১-২৩ মে নাট্যদলটি আয়োজন করে ‘লেইমা নাট্যোৎসব’। মঞ্চে আসার পর থেকে নাটকটি নাট্যাঙ্গনে বেশ সমাদৃত হয়ে ওঠে। 

 
বাঙলা থিয়েটারের ‘অমানুষ’
বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার স্টুডিও থিয়েটার মিলনায়তনে ২৫ এপ্রিল সন্ধ্যা ৭টায় উদ্বোধনী মঞ্চায়নের মধ্য দিয়ে যাত্রা করে বাঙলা থিয়েটারের নাটক ‘অমানুষ’। নাট্যজন মামুনুর রশীদের রচনা ও নির্দেশনায় এ নাটকে অভিনয় করবেন মামুনুর রশীদ ও মিতা চৌধুরী। আমাদের সমাজ ব্যবস্থা, শিক্ষা ব্যবস্থার ক্রান্তিকাল নিয়ে রচিত এ নাটকের মাধ্যমে এই দুই প্রবীণ অভিনয়শিল্পীকে দীর্ঘদিন পর একসাথে মঞ্চে দেখেন আমাদের দর্শক। 

 
কিস্সা কাহিনীর ‘সুখ চাঁন্দের মোড়’
চলতি বছরের ২৬ জুন ঢাকার মঞ্চে যোগ হয় আরও একটি নাট্যপালক। শ্রমজীবী মানুষের শোষণ বঞ্চনার কথামালায় নির্মিত মঞ্চের এই নতুন অতিথির নাম 'সুখ চাঁন্দের মোড়'। ব্যতিক্রমী নাট্যসংগঠন ‘কিস্সা কাহিনী’র প্রযোজিত ও আসাদুজ্জামান দুলাল রচিত এ নাট্যাঙ্কন নির্দেশনা দিয়েছেন মঞ্চাঙ্গনের প্রিয়মুখ মো. জসিম উদ্দিন। আবহমান বাংলার ঐতিহ্যবাহী নাট্যাঙ্গিক সংযাত্রার আদলে আবৃত হয়েছে নাটকটি। ফলে শিল্পমূল্যায়নের পাশাপাশি রস-বিনোদে দর্শকদের হৃদাকর্ষনে সমর্থ হয়েছে নাটকটি।

 

নাট্যবেদের ‘কমলাকান্ত’
৮ আগস্ট সন্ধ্যা ৭টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে প্রদর্শনী হয় নাট্যবেদের নতুন নাটক ‘কমলাকান্ত’র উদ্বোধনী। এটি তৈরি হয়েছে বাংলা সাহিত্যের লেখক বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের ‘কমলাকান্ত’ অবলম্বনে। নাটকটির নাট্যরূপ দিয়েছেন নাসরীন মুস্তাফা এবং নির্দেশনায় গোলাম সারোয়ার।
এটি ছিল দলের ষষ্ঠ প্রযোজনা।

 

অঙ্গীকারের ‘একতারা’
৫ আগস্ট উদ্বোধনী প্রদর্শনীর মধ্যদিয়ে মঞ্চে আসে অঙ্গীকার নাট্যদলের নতুন নাটক 'একতারা'। সুমনা কাঞ্জিলাল রচিত স্মৃতিকথনে নিবিষ্ট এ নাট্যবিনোদ নির্দেশনা দিয়েছেন রাজীব রেজা। সত্তর দশকের একটি বহুলপ্রচারিত পত্রিকার দুই রিপোর্টার বিশ শতকের শুরুর দিকে পতিতাপল্লী থেকে উঠে আসা এক বিখ্যাত অভিনেত্রীর সাক্ষাৎকার নিতে গিয়ে বেরিয়ে আসে তখনকার সমাজের সাম্রাজ্য, বারবণিতার জীবন, তার ওপর শারীরিক মানসিক অত্যাচার, হৃদখঁচিত প্রেমসত্তা এবং প্রচারের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে ওঠে আবার হারিয়ে যাওয়া এ নাটকের মূল উপজীব্য। 

 
মহাকালের 'নীলাখ্যান'
শোকের মাসে ব্যতিক্রমধর্মী নাট্যায়োজনার মাধ্যমে নিজেদের অনন্য উচ্চতায় আসীন করেছে মহাকাল নাট্য সম্প্রদায়। দ্রোহ ও প্রেমের কবি কাজী নজরুল ইসলামের ‘সাপুড়ে’ গল্পের আশ্রয়ে আনন জামানের নাট্যরূপায়নে ‘নীলাখ্যান’ নামক নতুন নাটক মঞ্চে আনে দলটি। শিল্পকলার পরিক্ষণ থিয়েটার হলে উদ্বোধনী মঞ্চায়নের মধ্য দিয়ে ১৪ আগষ্ট যাত্রা করে ড. ইউসুফ হাসান অর্ক নির্দেশিত অনন্য এই দৃশ্যকাব্য। শুরু থেকেই নাটকটি শিল্পগুণে দর্শকমনে স্বাতন্ত্রিকভাবে জায়গা করে নিয়েছে। 

 
জাবি নাট্যকলার ‘স্বর্ণবোয়াল’  
প্রয়াত নাট্যাচার্য সেলিম আল দীনের মৌলিক রচনাগুলোর একটি 'স্বর্ণবোয়াল'। এর আগে মাছ নিয়ে এতোটা বৃহৎ পরিসরে কোনো উপন্যাস বা নাটক লেখা হয়নি। জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশনায় মৎস্যজয়ের নেশাকাব্যে অঙ্কিত হয়েছে নাটক 'স্বর্ণবোয়াল'। দেশজ নাট্যারণ্যে দ্বৈতাদ্বৈতবাদী শিল্পরসে নির্মিত হয়েছে সেলিম আল দীন রচিত এই নাট্যাখ্যান। ২০ আগস্ট উদ্বোধনী মঞ্চায়নের মধ্য দিয়ে নান্দনিক শিল্পছন্দে মঞ্চালোকিত করে রেজা আরিফ নির্দেশিত এই নাট্যসৃজন।

 
নাগরিকের ‘দেওয়ান গাজীর কিস্সা’
এ বছর মঞ্চের সব চাইতে আলোচিত নাটক ‘দেওয়ান গাজীর কিস্সা’। কেননা নাটকটিকে ঘিরে থিয়েটার থেকে মুখ ফিরিয়ে নেওয়া বেশ ক’জন আলোকিত মঞ্চযোদ্ধার প্রত্যাবর্তন ঘটেছে এবছর। প্রায় এক যুগ পর নাটকটি আবারও নব উদ্দীপনায় মঞ্চে আসছে গেল ১১ সেপ্টেম্বর। এর আগে নাটকটি সর্বশেষ অভিনীত হয়েছিল ২০০৩ সালে। নাটকে অভিনয়ে যাঁরা ছিলেন, এবারও  তাদের কেউ কেউ আছেন। তার মধ্যে অন্যতম দেওয়ান গাজী রূপে আলী যাকের, মাখনের চরিত্রে আবুল হায়াত। আর চামেলীর চরিত্রে সারা যাকের। নাটকটি পূণরায় মঞ্চে আসাটা আমাদেও থিয়েটারের জন্য ছিল খুবই গুরুত্ববহ।

 
নাট্যকেন্দ্রের ‘বন্দুকযুদ্ধ’ ও ‘গাধারহাট’
এ বছর মঞ্চে দুটি নতুন নাটক মঞ্চে নিয়ে আসে থিয়েটার দল নাট্যকেন্দ্র। শিল্পকলা একাডেমীর জাতীয় নাট্যশালার স্টুডিও থিয়েটার মিলনায়তনে গত ১৭ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা ৭টায় ‘বন্দুকযুদ্ধ’ ও ‘গাধার হাট’ শিরোনামের দুটি নাটকের উদ্বোধনী মঞ্চায়ন অনুষ্ঠিত হয়। স্বল্প দৈর্ঘের নাটক দুটির রূপান্তর ও নির্দেশনায় রয়েছেন নাট্যব্যক্তিত্ব তারিক আনাম খান। দুই মিসরীয় নাট্যকার আলফ্রেড ফারাগ এবং তৌফিক আল হাকিম রচিত দুটি নাটক ‘দ্য ট্র্যাপ’-এর বাংলা রূপ ‘বন্দুকযুদ্ধ’ এবং ‘দ্য ডাংকি মার্কেট’-এর বাংলা রূপ ‘গাধার হাট’।

 

জাগরণীর ‘চিত্ত বিনিময়’
এ বছর সাভারের জাগরণী থিয়েটার তাদের ১৪তম প্রযোজনা হিসেবে মঞ্চে নিয়ে আসে নাটক ‘চিত্ত বিনিময়’। ২৯ সেপটেম্বর মঙ্গলবার শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল হলে জাগরণী থিয়েটারের এই নতুন প্রযোজনাটির উদ্বোধনী মঞ্চায়ন হয়। রাধারমণ ঘোষের রচনায় নাটকটির নির্দেশনা দিয়েছেন বৈদ্যনাথ অধিকারী।

 
ম্যাড থেটারের ‘নদ্দিউ নতিম’
ঢাকার মঞ্চের নবাগত নাট্যদল ‘ম্যাড থেটার’। দলটি প্রথম প্রযোজনা হিসেবে এ বছর মঞ্চে নিয়ে আসে ‘নদ্দিউ নতিম’। ৩০ অক্টোবর, শুক্রবার শিল্পকলা একাডেমীর স্টুডিও থিয়েটার হলে ছিল নাটকটির উদ্বোধনী মঞ্চায়ন। প্রয়াত কথা সাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের মূল কাহিনি অবলম্বনে নাটকটির রূপান্তর ও নির্দেশনা দিয়েছেন আসাদুল ইসলাম। ‘নদ্দিউ নতিম’র সেট ও লাইট ডিজাইন করেছেন ফয়েজ জহির এবং কোরিওগ্রাফি করেছেন আনিসুল হক বরুণ।

 
নাগরিক নাট্যাঙ্গনের ‘গহর বাদশা বানেছা পরী’
এ বছর মঞ্চে আসে নাগরিক নাট্যাঙ্গনের নতুন প্রযোজনা ‘গহর বাদশা ও বানেছা পরী’। গত ১৭ নভেম্বর শিল্পকলা একাডেমীর জাতীয় নাট্যশালার মূল হলে উদ্বোধনী মঞ্চায়ন হয় এই নাটকের। নাটকটি সংকলিত লোকগাঁথা নির্ভর। নাগরিক নাট্যাঙ্গনের ২০ তম প্রযোজনা ‘গহর বাদশা ও বানেছা পরী’র নির্দেশনা দিয়েছেন হৃদি হক।

 

শিল্পকলা একাডেমীর ‘মুল্লুক’
বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর ‘মূল্যবোধের নাটক’ কর্মসূচির আওতায় একাডেমীর মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকীর ভাবনা মঞ্চে আসে নতুন নাটক ‘মুল্লুক’। ঢাকা শিল্পকলা একাডেমীর ব্যানারে নির্মিত এ প্রযোজনার রচনা ও নির্দেশনা দিয়েছেন প্রতিভাধর নাট্যকর্মী বাকার বকুল। ৫ ডিসেম্বর, শনিবার একাডেমীর জাতীয় নাট্যশালার স্টুডিও থিয়েটার হলে ‘মুল্লুক’র প্রথম মঞ্চায়ন হয়। নাটকটির নতুন অভিনেতা-অভিনেত্রীদের সাবলীল অভিনয় দর্শকদের হৃদয় কাড়ে।

 

পদাতিকের ‘কাল রাত্রি’
গত ৬ নভেম্বর বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে উদ্বোধনী মঞ্চায়ন হয় পদাতিক নাট্য সংসদের ২৫শে মার্চ ভয়াল রাত্রি  তথা মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক নতুন প্রযোজনা ‘কাল রাত্রি’। লামিসা শিরীন হোসাইনের ‘লোন সার্ভাইভার’গল্প অবলম্বনে নাট্যরূপ দিয়েছেন ড. তানভীর আহমেদ সিডনী। লামিসা শিরীন হোসাইনের ‘লোন সার্ভাইভার’ গল্প নাট্য রূপায়ন করার ক্ষেত্রে অসহযোগ আন্দোলন, ছাত্র রাজনৈতিক সংশ্লিতাসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের দেশ স্বাধীন করার প্রতি গভীর আবেগ জেগে ওঠার কালকেই এই নাটকে উপজীব্য করা হয়েছে।

 
থিয়েটারের ‘মায়ানদী’
দীর্ঘদিন পর নতুন নাটক মঞ্চে আনে দেশের প্রথমসারীর নাট্যদল ‘থিয়েটার’। দলটির আয়োজনে শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার প্রধান মিলনায়তনে সপ্তাহব্যাপী থিয়েটার সপ্তাহের দ্বিতীয় সন্ধ্যায় (৫ ডিসেম্বর) মঞ্চস্থ হলো ‘মায়ানদী’। নাটকটির রচনা ও নির্দেশনায় ছিলেন মারুফ কবির। মায়ানদী হচ্ছে এই বাংলার মানুষগুলোর সঙ্গে মায়াময় সম্পর্কের বর্ণনা। বাঙালি পানির কষ্ট সহ্য করার ক্ষমতা খুব সীমিত কিন্তু প্রকৃতিকে ধ্বংসের এবং নদী ধ্বংসের ফলে এক সময় তা সমগ্র বাঙালি জাতিকে ফেলবে নানা সংকটে। বাঙালির জীবনে নেমে আসবে দুঃসহ বিভীষিকা এই বিষয়টি নাটকে উপস্থাপন করেছেন নাট্যকর্মীরা।

 
প্রাকৃতজনের ‘প্রেমপত্র’
ঢাকার মঞ্চে ১০ ডিসেম্বর যুক্ত হয়েছে নতুন আরেকটি থিয়েটার দল। ‘প্রেমপত্র’ নাটক মঞ্চায়নের মাধ্যমে ঢাকার মঞ্চে যাত্রা শুরু করল ‘প্রাকৃতজন’। গত বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার পরপর দুইদিন ‘প্রেমপত্র’ নাটকটির মঞ্চায়ন হয়েছে শিল্পকলা একাডেমীর স্টুডিও থিয়েটার হলে। এর আগে দলটি বগুড়ায় নাট্যচর্চা করত। ভৈকম মুহম্মদ বশীরের গল্প অবলম্বনে ‘প্রেমপত্র’-এর নাট্যরূপ দিয়েছেন শ্যামল ভট্টাচার্য। প্রয়োগ ভাবনায় রয়েছেন সেলিম রেজা সেন্টু। প্রথম দুটি প্রদর্শনীতে দর্শকের উপস্থিতি ছিল উল্লেখ করার মতো। নাটকটিতে ‘রিচার্ড’ চরিত্রে অভিনয় করেছেন সেলিম রেজা, তটিনীর চরিত্রে ফারজানা করিম ।