বিশেষ সংবাদ:

দেশত্ববোধক যাত্রাপালা নিয়ে চট্টগ্রাম যাচ্ছে দেশ অপেরা

Logoআপডেট: মঙ্গলবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৪

এবি প্রতিবেদক
১৬ই ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন আয়োজিত বিজয় উৎসবে অংশ নিতে যাচ্ছে ঢাকার জনপ্রিয় যাত্রাদল দেশ অপেরা।

 

আসরে দেশত্ববোধক তিনটি যাত্রাপালা পরিবেশন করবে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমী কর্তৃক নিবন্ধিত সনামধন্য এই যাত্রাদল। ১৫ ডিসেম্বর বন্দর নগরীর বাকলিয়া নতুন স্টেডিয়ামে আয়োজিত তিনদিন ব্যাপী এ মিলনমেলার শুভ উদ্বোধন করবেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র মনজুর আলম।

 

উৎসবের প্রথম সন্ধ্যায় প্রদর্শিত হবে শান্তি রঞ্জন দে রচিত জনপ্রিয় যাত্রাপালা ‘গঙ্গা থেকে বুড়িগঙ্গা’। ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে রচিত দেশত্ববোধের চেতনা নির্ভর ঐতিহাসিক এ পালায় প্রতীকী রুপে দেখা যাবে রক্তক্ষয়ী মহান মুক্তিযুদ্ধের শৌর্য-বির্য এবং সম্রাজ্যবাদী চক্রের শৌচনীয় পরাজয়ের উপাখ্যান।

 

১৬ই ডিসেম্বর পরিবেশনায় রয়েছে বজেন্দ্র কুমার দে রচিত জাগরণমূলক পালা ‘বর্গী এলো দেশে’। ১৭ই ডিসেম্বর বিজয় উৎসবের সমাপনী মঞ্চে প্রদর্শিত হবে শচীন সেন গুপ্তের ‘নবাব সিরাজউদ্দৌলা’। আসরে প্রদর্শিত হতে যাওয়া তিনটি পালারই নির্দেশনা দিয়েছেন  দেশ অপেরার স্বত্ত্বাধীকারী যাত্রানট মিলন কান্তি দে।

 

দেশব্যাপী ব্যাপক প্রশংসিত এই পালাগুলোতে অভিনয় করেছেন যাত্রাশিল্পী রিক্তা সুলতানা, গাজী বেলায়েত, এম আলীম, সিরাজুল ইসলাম, সুনীল দে, লুৎফুন্নেসা রিক্তা, মনিমালা, সুদর্শন চক্রবর্তী, ডা: দীপক বণিক, মোবারক আলী, উদয় সরকার, আবুল কালাম আজাদ, নিলয়, অলি, নিভা, বাচ্চু খান, আলমাস এবং এনএ পলাশ।

 

এধরণের বিশেষ আয়োজনে আংশগ্রহন প্রসঙ্গে মিলন কান্তি দে বলেন, তিনটি পালাই বিভিন্ন সময়ে জাতীয় জাগরণের প্রেক্ষাপটে রচিত হয়েছে। যা দেশত্ববোধের চেতনায় জাতিকে উজ্জিবীত করতে সহায়ক। বিজয়ের বর্ণাঢ্য এ আয়োজনে আমাদের আমন্ত্রিত করার জন্য আয়োজকদের প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা জানাই।